ঢাকা মঙ্গলবার, ২১শে সেপ্টেম্বর ২০২১, ৭ই আশ্বিন ১৪২৮


ইতালিতে শুরু বাংলা চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, প্রথম দিনেই দর্শকদের ভিড়


প্রকাশিত:
২৫ জুলাই ২০২১ ১৭:৪০

আপডেট:
২৫ জুলাই ২০২১ ১৮:১২

ইতালির ভেনিসে শনিবার (২৪ জুলাই) থেকে শুরু হয়েছে বহুল প্রত্যাশিত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব। ‘রিতিরো ডি কমুনিতা: সম্প্রদায়’ শিরোনামে শুরু হওয়া এই চলচ্চিত্র উৎসবের প্রথম দিনে প্রদর্শিত হয় মোহাম্মদ শিহাব উদ্দীনের আগামীকাল (টোমোরো) এবং কাজী টিপুর ১৮ প্লাস। ভেনিসের এম৯ মিউজিয়ামে প্রদর্শনী হওয়া প্রথম দিনে দর্শক ছিলো কানায় কানায় পরিপূর্ণ। বাংলা চলচ্চিত্র দেখতে প্রথমবারের মত বাংলাদেশি প্রবাসী ও ইতালি নাগরিকদের উপচেপড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। এর আগে অনেক চলচ্চিত্র প্রদর্শনী উৎসব হয়েছে ইতালিতে। কিন্তু তা ছিলো বিভিন্ন ভাষার সমন্বিত উৎসব। শুধু বাংলা চলচ্চিত্র দিয়ে ইতালিতে উৎসবের ঘটনা এই প্রথম। এরইমধ্যে ইতালির জনপ্রিয় বেশকিছু গণমাধ্যমে শুরু হয়েছে বাংলা চলচ্চিত্র বন্দনা। ইতালিতে ফ্লিম অ্যান্ড মিডিয়া বিষয়ে পড়াশোনা করা খ্যাতিমান চলচ্চিত্র পরিচালক কাজী টিপুর অলংকরণে ওভেনিস সিটি কর্তৃক প্রচারিত ফিল্ম কমিশন ফাউন্ডেশনের পৃষ্ঠপোষকতায় এবং ভেনিস বাংলা স্কুল অ্যাসোসিয়েশন, একতারা ইন্টারন্যাশনাল ও ম্যাড স্যুটকেসের যৌথ উদ্যোগে আয়োজন করা হয় এই চলচ্চিত্র উৎসব। এমন উৎসব আয়োজন করতে পেরে গর্বিত বাংলা-ইতালিয়ান চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর সার্বিক তত্বাবধায়নকারী তরুণ নির্মাতা ও একতারা ইন্টারন্যাশনাল প্রোডাকশনের কর্ণধার কাজী টিপু। তিনি বলেন, প্রবাসে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে এমন সাংস্কৃতিক আয়োজনের কোনও বিকল্প নেই। উদ্বোধনী দিনে প্রত্যাশার চেয়ে বেশি দর্শক ছিল। আশা করছি, পুরো উৎসবজুড়েই ভেনিস মাতাবে বাংলা চলচ্চিত্র। ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল প্রদর্শনীর উদ্দেশ্যকে স্বাগত জানিয়েছেন এবং সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন ভেনিসের সাংস্কৃতি বিষয়ক প্রধান পৃষ্ঠপোষক পাওলা মার। তিনি বলেন, ভেনিসের পৌরসভার সব বাসিন্দাদের মধ্যে ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের মাধ্যমে সামাজিক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত করতে আরও উৎসাহ যোগাবে বলে আমি মনে করছি। চলচ্চিত্র প্রদর্শনী মঞ্চে বক্তব্য দেন ‘ভেনিস বাংলা স্কুল’র প্রেসিডেন্ট সৈয়দ কামরুল। তিনি বলেন, চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর মাধ্যমে গড়ে উঠবে নবাগত প্রজন্ম এবং ইতালিয়ানদের মধ্যে বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক এবং পারস্পরিক সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্প্রীতি। অনুষ্ঠানে এম৯ মিউজিয়ামের প্রেসিডেন্ট লুকা মলিনারি বলেন, চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর মাধ্যমে নতুন করে বাংলাদেশের সাংস্কৃতির সঙ্গে পরিচিতি লাভ করবে। সিনেমা দেখতে আসা দর্শকদের ভিড় দেখে আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েন তিনি। ২৪ আগস্ট থেকে শুরু হওয়া এই চলচ্চিত্র প্রদর্শনী উৎসবটি চলবে আগামী ২৮ শে আগস্ট পর্যন্ত। এই উৎসবে মোট ১২টি সিনেমা প্রদর্শনের কথা রয়েছে।


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top