ঢাকা বুধবার, ১৪ই এপ্রিল ২০২১, ২রা বৈশাখ ১৪২৮


যেভাবে হয় করোনায় মৃতব্যক্তির দাফন কাফন


প্রকাশিত:
২২ মার্চ ২০২০ ০০:১১

আপডেট:
২২ মার্চ ২০২০ ১৮:১৩

সংগৃহীত

এরইমধ্যে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে দেশে করোনাভাইরাসে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের কেউ করোনা আক্রান্ত দেশ থেকে আসেননি। তাদের একজন প্রবাসফেরত কারও সংস্পর্শে এসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন।

করোনায় মৃতদের দাফন কাফন কীভাবে হচ্ছে- এ নিয়ে সাধারণ মানুষের কৌতূহলের অন্ত নেই। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর মৃতদেহ নিরাপদভাবে দাফন/সৎকার ব্যবস্থাপনার নির্দেশনা বাস স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিউর (এসওপি) প্রণয়ন করেছে। এ নির্দেশিকার উদ্দেশ্য হলো মৃতদেহ বা সন্দেহভাজন রোগীর মৃতদেহ নিরাপদভাবে দাফন বা সৎকার ব্যবস্থাপনার একটি নির্দেশনা প্রণয়ন করা এবং ভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পরা রোধ করা।

এসওপির ভূমিকাতে বলা হয়েছে, করোনায় মৃতব্যক্তির মৃতদেহ সৎকার বা দাফনপ্রক্রিয়া রোগীর পরিবার ও জনসাধারণের জন্য খুবই সংবেদনশীল। এই কাজে যেকোনো অব্যবস্থাপনা মতপার্থক্য ও জটিলতার সৃষ্টি করতে পারে। যেকোনো রকম ব্যবস্থা পূর্বে অবশ্যই রোগের পরিবারকে মৃতদেহের সৎকারের প্রক্রিয়াটা জানাতে হবে মৃতব্যক্তির পরিবারকে জানাতে হবে। যে মৃতদেহকে ধর্মীয়ভাবে সম্মান প্রদর্শনের অধিকার তাদের আছে সৎকার প্রক্রিয়া শুরুর আগে নিশ্চিত হতে হবে যে মৃতব্যক্তির পরিবারের প্রক্রিয়ার সাথে একমত আছেন।

  • ধর্মীয় আচারের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়া

প্রথমে দলনেতা পরিবারের নিকট জানাবে যে মৃতদেহ দাফন বা সৎকার যথাসম্ভব ধর্মীয় অনুশাসন মেনে ও সম্মান প্রদর্শনপূর্বক করা হবে। পরিবারের নিকট জানতে চাইবে যে মৃতদেহের সৎকার বা দাফনে তাদের কোনো নির্দিষ্ট অনুরোধ আছে কিনা যেমন মৃতদেহকে তায়াম্মুম বা পানি ছাড়াও করাতে চায় কি-না। এ ধরনের রোগীকে চিকিৎসাশাস্ত্র অনুযায়ী, অতিসংক্রমণশীল করোনা রোগে আক্রান্ত রোগীর মৃতদেহ বিশেষ পদ্ধতিতে গোসল করানোই শ্রেয়।

মুসলমান ব্যক্তির মৃতদেহকে ব্যাগে কাপড়বিহীনভাবে দাফন করা যাবে না। মুসলমান ব্যক্তির মৃতদেহকে তায়াম্মুম বা পানি ছাড়া অজু করানোর জন্য দাফনকাজ ব্যবস্থাপনা করার যে দল সেখান থেকে মুসলমান একজন সুরক্ষা সামগ্রী পরিধান করে এ কাজটি করতে পারে অথবা পরিবারের কেউ একজন এ কাজটি করতে পারে। এ প্রক্রিয়াটি সাধারণ পানিসহ ওজুর একটি রূপক স্বরূপ।

দাফনের জন্য সেলাইবিহীন সাদা কাফনের কাপড় এসবের ব্যবহার করতে হবে। দাফনকাজ ব্যবস্থাপনা করার দল কাফনের কাপড় সরবরাহ করতে পারে বা পরিবারের সদস্যরা নিজেরাও দিতে পারে।

দাফনকার্য ব্যবস্থাপনা করার দলের নারী সদস্য থাকলে তিনি নারী মৃতদেহের দাফনকার্য ব্যবস্থাপনা করবে। প্রয়োজনে আগে থেকে ইমামের অনুমতি সাপেক্ষে মৃতদেহ গ্রহণকারী ব্যক্তিকে কাপড় হিসেবে প্রতিরোধ করা যাবে। মুসলমানদের জন্য সাদা মৃতদেহ বহনকারী ব্যবহার করতে হবে।

  • দাফনকার্য পরিচালনা সাধারণ নীতিমালা

মৃতদেহ দাফনকাজ শুরু করার আগে আইইডিসিআরের ইনফেকশন প্রিভেনশন অ্যান্ড কন্ট্রোল টিমকে জানানো এবং আলোচনা করে নিতে হবে। শুধুমাত্র করোনাভাইরাস রোগী ব্যবস্থাপনায় প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ব্যক্তি সুরক্ষা পোশাক পরিধানপূর্বক মৃতদেহ স্পর্শ বা সরানো বা দাফনকাজ করবে।

  • মৃত দেহস্পর্শ ন্যূনতম রাখতে হবে

রোগীর মৃতদেহ ময়নাতদন্ত করা যাবে না। সন্দেহভাজন করোনা রোগের মৃতদেহ দাফনের পূর্বে ল্যাবরেটরির প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ব্যক্তি দ্বারা সম্পূর্ণ সুরক্ষা পোশাক পরিধান করে ও জীবাণুমুক্তকরণ প্রক্রিয়া মেনে মুখের লালার নমুনা সংগ্রহ করতে হবে।

  • দাফনকাজ ব্যবস্থাপনা করার দল

চার সদস্যবিশিষ্ট একটি দল সম্পূর্ণ সুরক্ষা পোশাক পরিধান করে (ডিসপোজেবল হাতের গ্লাভস, হেবি ডিউটি গ্লাভস, ডিসপোজেবল কাভার অল সুট, অভেদ্য প্লাস্টিক অ্যাপ্রোন, ফেস প্রটেকশন গগলস ও মাস্ক, রাবারের তৈরি জুতা জাপানি ছিদ্র প্রতিরোধ ও ওভারসুজ) মৃতদেহকে দাফনের জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করবে।

সম্পূর্ণ সুরক্ষা পোশাক পরিধান করে একজন সদস্য জীবাণুনাশক কার্যক্রমে যুক্ত থাকবে। সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে প্রক্রিয়াটি একজন কারিগরি পরিদর্শক তত্ত্বাবধান করবে। তার সম্পূর্ণ সুরক্ষা পোশাক পরিধান করা প্রয়োজন নেই। একজন সদস্য যোগাযোগকারী হিসেবে মৃতব্যক্তির পরিবারের সাথে যোগাযোগ করবে। যোগাযোগকারী অভাব থাকলে কারিগরি পরিদর্শক পরিবারের সাথে যোগাযোগ করার দায়িত্ব পালন করবে। একজন ধর্মীয় প্রতিনিধি থাকবেন যার সম্পূর্ণ সুরক্ষা পোশাক পরিধানের প্রয়োজন নেই।

দলে নির্দিষ্ট ধর্মীয় প্রতিনিধি না থাকলে স্থানীয় পর্যায়ে একজনকে এ কাজের জন্য নির্বাচিত করতে হবে। দাফনকার্য ব্যবস্থাপনা করা রদলের সকল সদস্যকে তাদের নিজ দায়িত্ব কর্তব্য সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা থাকতে হবে। নারী রোগীর মৃতদেহের দাফন করার ক্ষেত্রে একজন নারী অবশ্যই অন্তর্ভুক্ত থাকতে হবে।

  • জীবাণুনাশক

দাফনকাজ ব্যবস্থাপনার দিনেই জীবাণুনাশক তৈরি করতে হবে। হাতের পরিচ্ছন্নতার জন্য সাবান পানি অথবা ৭০ শতাংশ অ্যালকোহলযুক্ত হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে। জড়বস্তু ও সমতলস্থান পরিষ্কারের ০.৫ শতাংশ হাইপোক্লোরাইট সলিউশন ব্যবহার করতে হবে।

  • মৃতদেহের ব্যবস্থা প্রক্রিয়া

মৃতদেহের সাথে সংযুক্ত সকল টিউব ক্যাথেটার ইত্যাদি যদি থাকে সেগুলো সরিয়ে ফেলতে হবে। যদি রোগী ওয়ার্ডে বা হাসপাতালে মারা যায় তাকে প্লাস্টিকের কভার দিয়ে মুড়িয়ে ফেলার সাথে সাথে নির্দিষ্ট স্থানে সরিয়ে ফেলতে হবে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়ার জন্য। যদি সুরক্ষা পোশাক ও গ্লাভস রোগীর বডি ফ্লুইড দ্বারা সংক্রমিত হয় তা পরিবর্তন করে ফেলতে হবে। কাফনের কাপড়ের জন্য অনুরোধ থাকলে একটি সেলাইবিহীন সাদা সুতির কাপড় কাফনের কাপড় হিসেবে ব্যবহার করতে হবে। একটি সেলাইবিহীন সাদা সুতির কাপড় একটি খোলা প্লাস্টিকের বডি ব্যাগের ওপর রাখতে হবে। প্লাস্টিকটি ১৫০ মাইক্রোমিটারের কম হওয়া যাবে না। সম্পূর্ণ সুরক্ষা পোশাক পরিধানপূর্বক মৃতদেহটি উঁচু করে কাপনের কাপড়ের ওপর রাখতে হবে। একই কাপড় থেকে তিনটি ছোট অংশ কেটে কাপড় বেঁধে দিতে হবে প্রথমটি মাথার ওপরে একটি পায়ের নিচে আরেকটি শরীরের মাঝামাঝি অংশে বেঁধে দিতে হবে। কাফনের পর যত দ্রুত সম্ভব মৃতদেহটি চেনযুক্ত ব্যাগে ভরে বন্ধ করতে হবে। মৃতদেহ মোড়ানো শেষ করে এবং সমাধিস্থলে যাওয়ার পূর্বে ধর্মীয় রীতিনীতি অনুসারে জানাজা অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে। যত দ্রুত সম্ভব মৃতদেহের ব্যক্তি পূর্বনির্ধারিত সমাবেশস্থলে সরিয়ে ফেলতে হবে।

  • দাফন প্রক্রিয়া

দাফনের প্রক্রিয়া যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সম্পন্ন করা উচিত। মৃতদেহ বহনকারী ব্যাগটি কখনো খোলা যাবে না। মৃতদেহ বহনকারী ব্যাগ থেকে অবশিষ্টাংশ অপসারণ করা যাবে না।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top